JSN Gruve - шаблон joomla Окна

নিয়ম-শৃঙ্খলা বিধিঃ

ক) শিক্ষার চূড়ান্ত উদ্দেশ্য হলো সুশৃংখলভাবে ও সুপরিকল্পিত উপায়ে মানুষের বুদ্ধি- বৃত্তিক, মানসিক,ও আত্মিক বিকাশ ঘটানো। সুতরাং মানুষের দৈহিক, মানসিক ও আত্মিক প্রতিভার যথার্থ স্ফুরণ ঘটানোর জন্য সার্বিক শৃঙ্খলা হচেছ একটি অত্যাবশ্যকীয় পূর্বশর্ত । যে ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা জাতি নিয়ম-শৃঙ্খলার প্রতি যত বেশি নিষ্ঠাবান সে ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান জাতি তত বেশি উন্নত। আহসানিয়া মিশন কলেজ - এর লক্ষ্য হচ্ছে জাতিকে প্রতিনিয়ত শিক্ষিত, সুশৃংখল, দক্ষ, সৎ, ও নিষ্ঠাবান জনশক্তি উপহার দেয়া। এ ক্ষ্যৈ বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে কলেজের প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীকে নিম্নলিখিত নিয়ম- শৃংখল, বিধি-বিধান নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করতে হবে।

খ) পোশাক ও ব্যাজ প্রতিদিন ছাত্র-ছাত্রীকে নেইম ব্যাজ ও কলেজ কর্তৃক নির্ধারিত পোশাক পরিধান করে আসতে হবে ।

পোশাক গ্রীষ্মকালীন শীতকালীন খেলাধুলার পোশাক
বালক সাদা হাফ শার্ট, নেভী ব্লু রঙ্গের ফুল প্যান্ট, কালো জুতা ও কালো মোজা সাদা ফুল শার্ট, নেভী  রঙ্গের ফুল প্যান্ট, নীল টাই, নেভী ব্ল রঙ্গের ফুলহাতা সোয়েটার, কালো জুতা ও কালো মোজা সাদা শার্ট, সাদা প্যান্ট, পিটি সু ও সাদা মোজা
বালিকা নীল কামিজ, সাদা সালোয়ার, সাদা স্কার্ফ, কালো জুতা, কালো মোজা নীল কামিজ, সাদা সালোয়ার, সাদা স্কার্ফ, নেভী ব্লু রঙ্গের ফুল হাতা কার্ডিগান, কালো জুতা, কালো মোজা নীল কামিজ, সাদা সালোয়ার, পিটি সু ও সাদা মোজা

 

বিঃ দ্রঃ যে কোন কাজে কলেজে আসতে হলে অবশ্যই ছাত্র-ছাত্রীকে পোশাক পরিধান করে আসতে হবে ।

গ) পরিচয় পত্রঃ প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীকে কলেজে কর্তৃক পরিচয়পত্র প্রদান করা হয় । তাদের অবশ্যই পরিচয় পত্র সাথে রাখতে হবে । পরিচয় হারিয়ে গেলে ১০০ টাকা জরিমানা দিয়ে তিন দিনের মধ্যে ডুপ্লিকেট পরিচয় পত্র সংগ্রহ করতে হবে ।

ঘ) অভিভাককের পরিচয় পত্রঃ ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবককে বিভিন্ন সময়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের সাথে সাক্ষাৎকারের জন্য পরিচয়পত্র দেয়া হয় । পরিচয়পত্র ছাড়া কাউকে অভিভাবক হিসাবে গ্রহণ করা হয় না । অভিভাবাকের পরিচয় পত্র হারিয়ে গেলে একই নিয়মে ডুপ্লিকেট পরিচয় পত্র সংগ্রহ করতে হবে ।

ঙ) অভিভাবকের সাক্ষাৎকারঃ ক্লাশ চলাকালীন সময়ে কোন অভিভাবক ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে দেখা করতে পারবে না ।

চ) ক্লাসে উপস্থিতি ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাসে উপস্থিতি অনুপস্থিত প্রতি বিষয়ে ন্যুনতম ৮০% আবশ্যক । বিনা অনুমতিতে কোন ছাত্র-ছাত্রী কøাসে অনুপস্থিত থাকতে পারবে না । বিনা অনুমতিতে অনুপস্তিতির জন্য দৈনিক ৫ টাকা হারে জরিমানা দিতে হবে । কোন ছাত্র-ছাত্রী অসুস্থ হলে সাথে সাথে কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে । অন্যাথায় কলেজের বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ছ) ছুটিঃ বিশেষ বিবেচ্য কারণে প্রকৃত অভিভাবকের আবেদনক্রমে শিক্ষর্থীকে ছুটি মঞ্জুর করা যেতে পারে । তবে পরীক্ষার ক্ষেত্রে তা গ্রগণযোগ্য হবে না

) শৃংখলা ও আচার-আচারণঃ একজন আদর্শ শিক্ষার্থীর পরিচয় কেবল তার উত্তম ফলাফলেই নয়, সামগ্রিক আচার-আচারণ ও নিয়ম শৃংখলা মেনে চলার উপরও নির্ভর করে । তাই ছাত্র-ছাত্রীদের নিন্মোক্ত শৃংখলা ও আচার-আচরণ মেনে চলা বাধ্যতামূলক।

১. কলেজ প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রী তাদের জুনিয়ার/সিনিয়র ছাত্র-ছাত্রীদেরকে আপন ভাই-বোনের মত মনে করবে ।

২. ধূমপান ও রাজনৈতিক কার্যকলাপ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ও গুরুতর শাস্তিযোগ্য অপরাধ ।

৩. কলেজের যাবতীয় সম্পদের সুষ্ঠু রক্ষণাবেক্ষণে সার্কিক সহযোগিতা করবে । কোন ক্রমেই কলেজের সম্পদ বিনষ্ট বা ক্ষয় -ক্ষতি করা যাবে না।

৪. শ্রেণীকক্ষের দেয়াল, মেঝে, বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিল এবং বারান্দা ও ক্যাম্পাস কোনরুপে অপরিচ্ছন্ন করা যাবেনা।

৫. কলেজে াথবা রাস্তায় কাউকে উত্তেজিত, হয়রানি করা কিংবা ঝগড়া - বিপদ করা অথরা কোথাও সামাজিক পরিবেশ নষ্ট করা যাবেনা । কলেজের সুনাম ক্ষুন্ন হয় এমন কোন কাজ করা যাবেনা ।

৬. কলেজে প্রদত্ত পোশাক পরিধান করে আসতে হবে ।

৭. কলেজে পালানো নিষিদ্ধ ।